রবিবার , ১০ অক্টোবর ২০২১ | ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. খেলা
  5. চাকরি
  6. ধর্ম
  7. নির্বাচনী হালচাল
  8. ফিচার
  9. বিজ্ঞান-প্রযুক্তি
  10. বিনোদন
  11. মতামত
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা
  14. সম্পাদকীয়
  15. সারাদেশ

ভারতের বিপক্ষে অন্য আট-দশটি ম্যাচের মতোই খেলবে পাকিস্তান

প্রতিবেদক
admin
অক্টোবর ১০, ২০২১ ৮:০২ পূর্বাহ্ণ

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভের দ্বিতীয় দিনই দেখা মিলবে দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার লড়াই। আগামী ২৪ অক্টোবর এই ম্যাচ দিয়েই নিজেদের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু করবে ভারত ও পাকিস্তান। এরই মধ্যে ম্যাচটি ঘিরে জমে উঠেছে দুই দেশের সাবেক ক্রিকেটারদের কথা লড়াই।তবে পুরোপুরি ভিন্ন ভাবনা পাকিস্তান ক্রিকেট দলের উইকেটরক্ষক ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ানের। তিনি ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটিকে অন্য আট-দশটি ম্যাচের মতোই বিবেচনা করতে চান। কেননা এই ম্যাচের জন্য বাড়তি চাপ নিলে সেটি বরং হিতে বিপরীতই হতে পারে।

শনিবার সংবাদ সম্মেলনে রিজওয়ান বলেছেন, ‘এই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি অন্য যেকোনো ম্যাচের মতোই গণ্য করা হবে। সোশ্যাল মিডিয়া ও সমর্থকরা এই ম্যাচ ঘিরে অনেক উত্তেজনা তৈরি করছেন। তবে আমাদের মন ও হৃদয়ে এটিকে অন্য যেকোনো ম্যাচের মতোই বিবেচনা করা হবে। কারণ এই ম্যাচের জন্য বাড়তি চাপ নিয়ে নিলে ফল ভালো হবে না।’পাকিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে পরিবর্তন আনা হয়েছে দুই দফা। প্রথমে তিন আজম খান, খুশদিল শাহ ও মোহাম্মদ হাসনাইনের জায়গায় তারা দলে নিয়েছে সরফরাজ আহমেদ, হায়দার আলি ও ফাখর জামানকে। এরপর শনিবার দ্বিতীয় দফায় শোয়েব মাকসুদের জায়গায় নেয়া হয়েছে অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শোয়েব মালিককে।

শেষের এই পরিবর্তনটি মূলত ইনজুরির কারণে করা। এ বিষয়ে রিজওয়ান বলেছেন, ‘আমরা যখন থেকে খেলা শুরু করেছি, তখন থেকেই এমনটা হয়ে আসছে। কারণ আপনি ইনজুরি সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। করোনাভাইরাস পরিস্থিতির পর থেকে অন্য অনেক ইস্যুও দেখা যায়। এসব পরিস্থিতির জন্য আমরা সবসময়ই প্রস্তুত থাকি। তাই এটি মানসিকভাবে তেমন কোনো সমস্যা করবে না।’রোববার থেকে মূল অনুশীলন শুরুর কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা শুক্রবার থেকে একসঙ্গে আছি এবং ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপটা আমাদের জন্য উপহার হয়েই এসেছে। এর ফলে আমরা প্রস্তুতি একটা সুযোগ পেয়েছি। তবে আমাদের মূল অনুশীলন শুরু হবে রোববার থেকে। কারণ এখন থেকেই আমরা বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সবাই একসঙ্গেও অনুশীলন করবো।’

বিশ্বকাপের এবারের আসরের আয়োজক ভারত হলেও, খেলা হবে আরব আমিরাতের তিন ভেন্যুতে। দীর্ঘদিন আরব আমিরাতকেই নিজেদের হোম গ্রাউন্ড হিসেবে ব্যবহার করেছে পাকিস্তান। তবে এর ফলে বাড়তি সুবিধা পাওয়া যাবে বলে মনে করেন না রিজওয়ান। এর পেছনে শক্ত ব্যাখ্যাও দিয়েছেন তিনি।রিজওয়ানের ভাষ্য, ‘আমি কখনও এসব বিশ্বাস করি না। পাকিস্তান বা অন্য কোনো দলের আরব আমিরাত বা অন্য কোথাও বাড়তি সুবিধা পাবে বলে মনে করি না। আমরা এটা বলতে পারি যে বিশ্বকাপটি এশিয়ায় হচ্ছে। হ্যাঁ আমরা সেখানে অনেকদিন ধরে খেলছি এবং আমাদের হোম গ্রাউন্ডও বলা হতো।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘কিন্তু এটা কখনও মানতে পারিনি আমি। কারণ সেখানের পিচ আমার মতে, অস্ট্রেলিয়া বা অন্য কোথাও থেকে মাটি এনে বানানো। তাই আরব আমিরাতকে আমাদের হোম গ্রাউন্ড বলা হলেও, বিষয়টা আসলে তেমন ছিলো না।’ রোববার থেকে শুরু হচ্ছে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ প্রস্তুতি। আগামী ১৪ অক্টোবর গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ম্যাচের পরিস্থিতি বানিয়ে অনুশীলন করবে তারা। পরদিন চার্টার্ড বিমানে করে দুবাইয়ের উদ্দেশে রওনা হবে বাবর আজমের দল।

 

সর্বশেষ - রাজনীতি